বাজার খারাপ থাকায় দুশ্চিন্তায় আলু চাষীরা

বাজারে নতুন আলুর আমদানী বাড়ার সাথে সাথে কমছে আলুর দামও। এইদিকে কৃষকের দুশ্চিন্তার যেনো শেষ নেই, কিভাবে জমি থেকে তুলবে আলু এই নিয়ে মহা বিপদে কৃষক। রাজশাহী জেলার মোহনপুর থেকে কিছু কৃষকের সাথে কথা বলে তাদের বর্তমান অবস্থা জানা যায়।

প্রশ্নঃ আপনার নাম?
আমজাদঃ আমজাদ হোসেন।

প্রশ্নঃ কতটুকু আলু করেছেন এইবার?
আমজাদঃ পাঁচ বিঘা।

প্রশ্নঃ ফলন এবং দাম কেমন এইবার আলুর?
আমজাদঃ ফলন খুব ভাল তবে দাম খুব কম। মাত্র আট টাকা কেজি আলু দরে আলু বেচা কেনা হচ্ছে।

প্রশ্নঃ এই দামে আলু বিক্রি করে আপনার লাভ হচ্ছে?
আমজাদঃ এই দামে আলু বিক্রি করে কোন লাভ হচ্ছে না। কারন এক বিঘা আলু চাষ করতে প্রায় পচিশ থেকে ত্রিশ হাজার টাকা খরচ হয়ে যাচ্ছে কিন্তু আলুর দাম কম থাকায় আমরা লাভবান হতে পারছি না।

প্রশ্নঃ এখন আলু না বেচে পরে বেচলে তো দাম বেশি পাবেন মনে হয়?
আমজাদঃ আমার নিজের কোন জমি নাই, মানুষের জমি নিয়ে আলু করেছি তার উপর আবার ঋন নিয়েছি সেটাও শোধ করা লাগবে তাই লাগ লস দেখে লাভ নাই ঋনের বোঝা বাড়ানো যাবে না।

প্রশ্নঃ ঋন কোথায় থেকে নিয়েছেন?
আমজাদঃ এনজিও থেকে।

প্রশ্নঃ সরকারী ব্যাংক থেকে ঋন দেয় না?
আমজাদঃ যাদের জমিজমা নাই তাদের সরকারী ব্যংক থেকে ঋন দেয় না আবার ব্যংকে থেকে ঋন চাইতে গেলে এক লক্ষ টাকায় ত্রিশ হাজার টাকা ঘুষ চাই তার উপর আবার টাকার উপর সুদ দিতে হবে। এর থেকে এনজিও ভালো শুধু মুখ দেখে ভোটার আইডি কার্ডের ফটো কপি নিয়ে টাকা দিয়ে দেয়।

প্রশ্নঃ এনজিও কে কতটুকু সুদ দিতে হয় আর কিভাবে টাকা শোধ করতে হয়?
আমজাদঃ এনজিও ৩০% সুদ নেও আর টাকা নেওয়ার পরের সপ্তাহ থেকেই কিস্তির মাধ্যমে টাকা শোধ করতে হয়।

প্রশ্নঃ এইসব জটিলতার মধ্যে কি করলে আপনাদের মত কৃষকরা লাভ করতে পারবে বলে আপনি মনে করেন।
আমজাদঃ আলু যদি বাইরের দেশে পাঠিয়ে দেওয়া তাহলে দেশে আলুর দাম বাড়বে আর আমরাও ক্ষতিগ্রস্ত হবো না। আর এছাড়াও যদি সরকারী ব্যাংকগুলো ভুমিহীন কৃষকদের কম সুদে ঋন দেয় তাহলেও আমরা আলু চাষ করে লাভবান হতে পারবো। এখন সরকার যদি কৃষকের সুযোগ সুবিধা দেয় তাহলে আমরা সুখে দিন কাটাতে পারবো।

প্রশ্নঃ আলু চাষে তো অনেক খরচ ও ঝামেলা তারপরও আলু চাষ করেন কেনো?
আমজাদঃ আমাদের প্রধান কাজই হচ্ছে কৃষি কাজ আর লাভের আশাতেই তো কাজ করি তারপরও যদি ভালো ফসল উৎপাদন করার পর লস হয় তাহলে তো আমাদের করার কিছুই থাকে না আমরা তো নিরুপায়।

ধন্যবাদ আপনাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *