সচেতনতার বার্তা হোক দেওয়ালে দেওয়ালে

পরিবর্তন কখনো স্বাভাবিক ভাবে হয় না, এর জন্য প্রয়োজন হয় কিছু উদ্যোগ। বর্তমানে আমাদের দেশ উন্নয়নের দিকে ধাবিত হচ্ছে কিন্তু উন্নত হচ্ছে না সমাজ। আধুনিক যন্ত্র আমাদের সমাজকে স্পর্শ করলেও, স্পর্শ করতে পারেনি মানুষের বিবেককে।

তাই সমাজের মানুষকে সচেতন করতে প্রতিটি জনবহুল এলাকার ফাকা দেওয়ালগুলো পূর্ণ হোক সামাজিক সচেতনতার বার্তা দিয়ে। এর মাধ্যমে হয়তো তৎক্ষণাৎ ফলাফল পাওয়া যাবে না তবে দিনে দিনে এসকল বার্তা দেখে মানুষের মধ্যে সামান্য হলেও পরিবর্তন আসবে। আর এভাবেই মানুষ অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে উদ্বুদ্ধ হবে।

দেওয়াল্গুলোয় শিশু নির্যাতন, বাল্যবিবাহ, কাজের লোকের উপর অত্যাচার, যৌন হয়রানি সহ বিভিন্ন সমস্যাগুলোর চিত্র অংকন করে সচেতনতামুলক বার্তা প্রকাশ করা যেতে পারে। এর ফলে প্রত্যেকদিন সবাই এই বার্তাগুলো দেখতে পারবে এবং কোন অপরাধ করার আগে একটু হলেও শাস্তির কথা মনে পড়বে যার ফলে কমে যেতে পারে এই অপরাধগুলো।

তাহলে কারা করবে এই কাজ? এই কাজের জন্য আমাদের তরুন সমাজ যথেষ্ট। তরুনরাই পারে আমাদের সমাজকে পরিবর্তন করতে। তাদের ইচ্ছে শক্তিই পারে আমাদের সমাজকে পরিবর্তন করতে।

স্কুল কলেজ পড়ুয়া অনেক শিক্ষার্থী আছে যারা আর্ট করতে পারে তাদের কাজে লাগিয়ে আমরা দেওয়াল অংকন দ্বারা সাধারন মানুষকে সচেতন করতে পারি। এতে যেমন মানুষ সচেতন হবে তার পাশাপাশি স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রীরা তাদের প্রতিভা দেখানোর সুযোগ পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *