ফুল ব্যবসায়ী

ফুল চাষ একটি লাভজনক ব্যবসা কিন্তু এই ব্যবসায় লাভ করার জন্য আগে বাজার নিশ্চিত করতে হবে যে আপনার ফুল কোথায় বেশি বিক্রি হবে। এই পেশার সাথে যুক্ত হয়ে গ্রামের তরুনরা কর্ম সংস্থানের সাথে যুক্ত হতে পারে। এই পেশাকে সম্ভাবনা হিসেবেও দেখা যেতে পারে। কিন্তু ফুল চাষে কিছু কিছু সমস্যা আছে যা আমরা ফুল চাষী সোহেলের কাছ থেকে জানতে পারি। যে তিনি ফুল চাষের জন্য বৈজ্ঞানিক কোন পদ্ধতি জানেন না কৃষক মুখে শুনেই ফুল চাষ করে। তবে ফুল চাষ প্রশিক্ষনের মাধ্যমে এই কাজ করলে লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা বহুগুন।

প্রশ্নঃ আপনি কি করেন?
সোহেলঃ আমি একজন পাইকারী ফুল ব্যবসায়ী।
প্রশ্নঃ বাসা কোথায়?
সোহেলঃ হরিপুর।
প্রশ্নঃ কতদিন ধরে এই পেশার সাথে যুক্ত আছেন?
সোহেলঃ আছি প্রায় ৩০ বছর ধরে।
প্রশ্নঃ কি কি ফুল পাওয়া যায় আপনার বাগানে?
সোহেলঃ গোলাপ, রজনীগন্ধা, গ্যালোডিয়াস।
প্রশ্নঃ আপনার ফুলে যখন রোগ বালাই আসে তখন আপনি কিভাবে এটা রোধ করেন?
সোহেলঃ বিভিন্ন বিষ প্রয়োগ করি।
প্রশ্নঃ কৃষি বিষয়ক কি কোন সাহায্য পান?
সোহেলঃ না পাই না।

প্রশ্নঃ ফুল চাষ করার জন্য তো অনেক কিছুই জানতে হয় তো আপনারা কিভাবে এগুলা জানেন?
সোহেলঃ আমরা যারা ফুল চাষী আছি তারা একে অপরকে সাহায্য করে এর মাধ্যমেই জানতে পাই।
প্রশ্নঃ ফুল চাষে আগ্রহী হলেন কেনো?
সোহেলঃ ভালো লাগতো একসময় তাই।
প্রশ্নঃ ফুল চাষে কেমন লাভ হয়?
সোহেলঃ ভালো লাভ হয়।
প্রশ্নঃ এতে কি আপনার সংসার চলে?
সোহেলঃ হ্যাঁ চলে।
প্রশ্নঃ আপনার ছেলে মেয়ে কয়টা?
সোহেলঃ আমার মেয়ে আছে দুইটা।
প্রশ্নঃ ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি ওদের নিয়ে?
সোহেলঃ আমার মেয়েদের ডাক্তার বানাবো।
প্রশ্নঃ আপনার এই ফুল গুলো শুধুই কি রাজশাহীতে বিক্রি হয়?
সোহেলঃ রাজশাহীতে কিছু দিই আবার চাপাইতে কিছু যাই।
প্রশ্নঃ ফুলের দাম কম বেশি হওয়ার কারন কি?
সোহেলঃ ফুলের দাম চাহিদার উপর নির্ভর করে। যখন বিয়ের সিজিন থাকে তখন ফুলের ব্যবহার বেড়ে যায় আর তখনই বাজারটা বেশি থাকে।

প্রশ্নঃ কি কি সমস্যার মধ্যে পড়েছেন এই পেশায়?
সোহেলঃ অনেক ধরনেরই সমস্যায় পড়তে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *